ধাপে ধাপে ডাইরেক্ট অ্যাকশন

cloudfront.crimethinc.com/assets/articles/2017/03/14/header.jpg

সহজ করে বলতে গেলে ডাইরেক্ট অ্যাকশন মানে হল মধ্যসত্ত্বভোগীকে বাতিল করে দেয়া: বাইরের প্রতিষ্ঠানের প্রতি নির্ভরশীল কিংবা কর্তৃপক্ষের কাছে পিটিশন করার চেয়ে সমস্যা নিজেই নিজে সমাধান করা। কোন অ্যাকশন যা সরাসরি লক্ষ্য অর্জনে নিয়ন্ত্রণ এবং রেপ্রিজেন্টেশনের তোয়াক্কা করে না তা হল ডাইরেক্ট অ্যাকশন- এটা বিমানবন্দর অবরোধ করা থেকে শরণার্থীদের নিরাপদে যেতে সহায়তা করা পর্যন্ত সবকিছুই অন্তর্ভূক্ত করে এবং পুঁজিবাদের উপর নির্ভর থেকে আপনার কমিউনিটিকে মুক্ত করতে সংগঠিত কর্মসূচি নেয়া। এখানে আমরা ধাপে ধাপে ডাইরেক্ট অ্যাকশন সংগঠিত এবং পরিচালনার একটি গাইড- পরিকল্পনার স্তর থেকে শেষে সারাংশ পর্যালোচনা পর্যন্ত, আইনী সহায়তা, গণমাধ্যম কৌশল এবং যথাযথ নিরাপত্তা প্রভৃতি বিষয় উপস্থাপন করছি।

cloudfront.crimethinc.com/assets/articles/2017/03/14/direct-action-guide-1.jpg

সেখানে অগণন দৃশ্যাবলি আছে যেখানে আপনি ডাইরেক্ট অ্যাকশন পদক্ষেপ নিতে চাইবেন। সম্ভবত, নিন্দিত বহুজাতিক কর্পোরেশনের প্রতিনিধিরা একটি মিটিং করার জন্যআপনার শহরে আসছে এবং আপনি একটি সাইন ধরে রাখার চেয়ে আরও অধিক কিছু চান; সম্ভবত তারা সেখানে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছে, কর্মীদের অপব্যবহার করে এবং পরিবেশকে ধ্বংস করে এমন ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো পরিচালনা করছে, এবং আপনি তাদের ভুলকাজের পথে বাধা দিতে চান; সম্ভবত আপনি একটি উৎসবের আয়োজন করবেন, কমিউনিটি-ভিত্তিক ইভেন্ট যেমন ধরুন একটি স্ট্রিট পার্টি। ডাইরেক্ট অ্যাকশন একটি পতিত ভূমিতে একটি পাবলিক গার্ডেন তৈরি করতে পারে কিংবা এটাকে বুলডােজারের হাত থেকে রক্ষা করতে পারে; এটা গৃহহীনের আশ্রয়ের জন্য খালি ভবনগুলো দখল করে নিতে পারে কিংবা সরকারি অফিস-আদালত বন্ধ করে দিতে পারে। আপনি বিশ্বস্ত বন্ধু মিলে গোপনে কিংবা হাজার হাজার মানুষের সঙ্গে একটি গণআন্দোলনে অ্যাকশন নিন না কেন মৌলিক উপাদান একই।

এক নজরে ডাইরেক্ট অ্যাকশন: ধাপে ধাপে

প্রথমত…

মাথা খাটানো : একটি প্রকল্প বেছে নিন এবং একটি পরিকল্পনা তৈরি করুন

একটি সমস্যা থেকে মাথা খাটানো বা ব্রেইনস্টোরমিং শুরু হতে পারে যা আপনি সমাধান করতে চান, কিংবা একটি সামাজিক অবদান আপনি তৈরি করতে চান; আপনার কাছে যেসব রিসোর্স আছে তাদের দ্বারা অবহিত হতে পারে, একটি অভিজ্ঞতার রূপ যা আপনি আকাঙ্ক্ষা করেছিলেন কিংবা সেসমস্ত মানুষ যাদের সঙ্গে আপনি কাজ করতে চান। আপনি একটি একক সংক্ষিপ্ত অভিযান কিংবা একটি দীর্ঘমেয়াদী ক্যাম্পেইন হাতে নিতে পারেন। প্রায়শই, ব্রেইনস্টোর্মিংয়ের সেরাটা ঘটে দিবাস্বপ্নের সময় কিংবা অপ্রাতিষ্ঠানিক আলোচনায়- এটা একটা ভালো নীতি যে বিশ্বাস করা যে আপনার পাগলা আইডিয়া বাস্তবিত হতে পারে এবং সেগুলো চেষ্টা করা।

একই টোকেন দিয়ে, এমনকি অন্যদের দ্বারা আয়োজিত ইভেন্টে যোগ দেয়ার সময়, এটা শ্রেয় যে আপনি একটি পরিকল্পনা নিয়ে আসতে পারেন যাতে আপনি আপনার মতো করে অবদান রাখতে পারেন।

যদি এটা অর্থপূর্ণ হয় যে আপনার অ্যাকশন প্রকাশ্যে সংগঠিত হওয়া প্রয়োজন, তাহলে একটি ফরম্যাট প্রতিষ্টা করুন, যেমন গণসমাবেশ, যাতে একটি কৌশল এবং ট্যাকটিসের উপর কাজ করা যায়। বন্ধুদের আমন্ত্রণ করুন কিংবা প্রচারপত্র বিলি করুন কিংবা এটা ঘোষণা দিতে দিতে মানুষের দরজায় দরজায় যাওয়া। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আপনার প্রস্তাবনা নিয়ে আসুন ক্ষেত্র বিশেষে কেউ যদি না করে।

আরও ক্লানডেস্টাইন বা অগোচর কর্ম বা অ্যাকশনের জন্য, একজন বা দুইজন বিশ্বস্ত বন্ধুর সঙ্গে নিরাপদ পরিবেশে বোঝাপড়া করুন। আপনার ধারণাগুলোকে নিজের কাছেই রাখুন যেহেতু আপনি একটু একটু করে কথা বলছেন যাতে আপনি সবটুকু ইতোমধ্যে ছেড়ে দেবেন না যখন আপনি এসবের জন্য প্রস্তুত।

লক্ষ্যসমূহ**: অ্যাকশনের লক্ষ্যগুলো প্রতিষ্ঠা এবং অগ্রাধিকার দেয়া

কার জন্য আপনার অ্যাকশন? এটা কি স্পট দর্শকদের, কর্পোরেট মিডিয়া দর্শকদের, নির্দিষ্ট কর্পোরেশনের মালিকদের, তাদের স্টকহোল্ডারদের, পুলিশ এবং সরকার, কমিউনিটির অন্যান্য সদস্যদের, অংশগ্রহণকারীদের নিজেদেরকে নির্দেশ করে?

এটা কি সম্পাদন করার জন্য করা হয়? এটা কি অবিচারের দিকে নজর দিতে, মানুষকে অনুপ্রেরণা দিতে, সুরক্ষিত করার জন্য, বিশেষ স্বর সেট করার জন্য, বিধিনিষেধ সরবরাহ করতে, বাধা প্রদানের জন্য, সবাই অংশ নিতে পারে এমন একটি মডেল প্রদর্শন করতে সংশ্লিষ্ট যারা তাদের জন্য একটি শেখার এবং বন্ধন অভিজ্ঞতা বিনিময়ের জন্য, বিভিন্ন আইডিয়ার যোগাযোগের জন্য?

শুরু থেকে অ্যাকশনের লক্ষ্যসমূহ সম্পর্কে একটি পারস্পারিক বোঝাপড়ার প্রতিষ্ঠা পরে আপনার অনেক বোঝা কমাতে সাহায্য করবে যখন আপনার পরিকল্পনা পরিবর্তন হয় এবং সম্ভাব্য দ্বন্দ্বগুলো উত্থিত হয়।

কাঠামো

অ্যাফিনিটি গ্রুপগুলো: আপনি যাদের চেনেন-জানেন, শক্তভাবে তাদের সঙ্গেই কাজ করুন

ডাইরেক্ট অ্যাকশন সংগঠিত করার সবচেয়ে দক্ষ এবং নিরাপদ মডেলগুলোর মধ্যে একটি হল অ্যাফিনিটি গ্রুপ মডেল। একটি অ্যাফিনিটি গ্রুপ হল বন্ধুদের একটি গ্রুপ যারা পরস্পরকে গভীরভাবে বিশ্বাস করে এবং একই ধরণের লক্ষ্যগুলো ভাগাভাগি করে নেয়; একটি দীর্ঘ সময়ের ব্যবধানে একত্রে কাজ করে, তারা দক্ষ এবং কার্যকরী হয়ে উঠে।

একটি ছোট অ্যাকশনের জন্য, একটি অ্যাফিনিটি গ্রুপের সদস্যরা ভিন্ন ভিন্ন ভূমিকায় কাজ করতে পারে। একটি বৃহত্তর অ্যাকশনের জন্য অ্যাফিনিটি গ্রুপগুলো অন্যান্য অ্যাফিনিটি গ্রুপের সঙ্গে একটি” ক্লাস্টার” বা গুচ্ছে যুক্ত হয়ে কাজ করুন, প্রত্যেক গ্রুপ অন্তত একটি করে ভূমিকা রাখার মধ্য দিয়ে। এটা সিদ্ধান্ত গ্রহণকে সহজতর করে যা একটি বড় সমাবেশে যা হয়, যেহেতু প্রত্যেক গ্রুপ একজন প্রতিনিধিকে একটি স্পোকসকাউন্সিলে প্রেরণ করতে পারে। অ্যাফিনিটি গ্রুপের গুচ্ছগুলো দীর্ঘ সময়ের ব্যবধানে একত্রে কাজ করতে পারে, বিশ্বস্ততা এবং কার্যকারিতা তৈরি করতে পারে।

নিয়োগ: সাবধানে অন্যান্য ব্যক্তি এবং দলকে ঐক্যবদ্ধ করুন

আপনার কাছে যখনই একটি পরিকল্পনা থাকবে, নির্ধারণ করুন কতজন লোক কাজটি সম্পাদন করতে লাগবে। আপনার পরিকল্পনার গোপনীয়তা প্রয়োজন হলে, শুধু গোপন রাখতে আপনি বিশ্বাস করেন এমন লোকেদের আমন্ত্রণ জানান এবং আপনি নিশ্চিত যে এতে যোগদান করতে চান। এক এক করে আমন্ত্রণ বর্ধিত করুন কিংবা অ্যাফিনিটি গ্রুপ থেকে অ্যাফিনিটি গ্রুপে যাতে যারা অংশগ্রহণের বিপরীতে সিদ্ধান্ত নেবে তারা সংশ্লিষ্টদের সম্পর্কে সবকিছু জানবে না। একজন সাধারণ আগ্রহী কার্যকর অংশগ্রহণকারী কেমন হবে সে সম্পর্কে প্রশ্ন করার মধ্য দিয়ে শুরু করুন এবং পরিকল্পনার ক্রিটিক্যাল ডিটেইল প্রকাশ করবেন না যেমন ধরুন সঠিক লক্ষ্য কিংবা তারিখ সম্পর্কে যতক্ষণ না পর্যন্ত তিনি একটি কমিটমেন্ট করতে প্রস্তুত হয়। যখন জনতাকে একটি পরিকল্পনার মধ্যে নিয়ে আসা হয় এবং অন্যদেরকে নিয়ে আসতে যাওয়া হয়, তখন নিশ্চিত করুন প্রত্যেককে নিরাপত্তার যথাযথ মাত্রা সম্পর্কে একই ধরণের বোঝাপড়া আছে কিনা।

প্রকল্পে অনেক লোক যুক্ত হয়ে যাওয়ার পড়ে, প্রত্যেকের এটা বোঝা গুরুত্বপূর্ণ যে তাদের থেকে কতটুকু কমিটমেন্ট প্রত্যাশা করা যায়। মাঝেমধ্যে যে গ্রুপ প্রথমে একটি পরিকল্পনা উপস্থাপন করে সেটা ততটাই ইনভেস্টেড থাকবে অন্যদের চেয়ে; যদি তারা মাসের পর মাস কর্মপ্রস্তুতি নেয়, শুধু অন্য একটি গ্রুপকে পাওয়ার জন্য যাদের উপর তারা নির্ভরশীল যদি শেষ মুহূর্তে না আসে তাহলে সমস্ত কাজ অপচয় হয়ে যাবে। শুরু থেকেই সবার কাছ থেকে সৎ হওয়ার দায় প্রত্যেকেই আশা করে যা তাদের প্রত্যাশার বাস্তবসম্মত। একইসঙ্গে, যারা প্রকল্পটি শুরু করে তাদের সংশ্লিষ্ট সকলের সঙ্গে মালিকানা ভাগ করে নেওয়ার জন্য সতর্ক থাকা উচিত।

ডাইনামিক্স: গ্রুপের মধ্যে ক্ষমতা সমভাবে বণ্টিত কিনা তা নিশ্চিত করুন

একটি অংশগ্রহণমূলক এবং সম্মতিসূচক পদ্ধতিতে সব সিদ্ধান্ত নিন। যদি আপনার গ্রুপটি এটার পক্ষে যথেষ্ট পরিমাণে হয় তবে সব কণ্ঠস্বর শুনতে একটি আনুষ্ঠানিক বা আনুষ্ঠানিক ঐক্যমত্য মিটিং প্রক্রিয়া ব্যবহার করুন: প্রতিটি মিটিংয়ের এজেন্ডা একসঙ্গে সেট করুন এবং জিনিসগুলোর ট্র্যাক রাখতে একজন ফ্যাসিলেটর চয়ন করুন। যতটা অংশ নেবে অংশগ্রহণকারী সিদ্ধান্ত ততটাই ভালোভাবে জানানো যাবে।

অভ্যন্তরীণ ডাইনামিক্স সম্পর্কে সচেতন থাকুন যা ভারসাম্যহীন হতে পারে, যেমন বিভিন্ন ব্যাকগ্রাউন্ডের লোকেদের মধ্যে, বা স্থানীয় আয়োজক এবং শহরের বাইরে থেকে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে। পরিকল্পনা এবং অ্যাকশনের প্রস্তুতিতে যত জনতা অংশ নেবে এর সফলতার জন্য বিনিয়োগ তত বেশি হবে। একটি ভাল আন্ত-ডাইনামিক গ্রুপ হল যে কোন ব্যক্তির চেয়ে স্মার্ট; ব্যক্তি আইডিয়া নিয়ে আসতে পারে কিন্তু তা বাস্তবে রূপ দিতে একটি গ্রুপ একত্রে সবচেয়ে ভালোটাই করতে পারে।

প্রকল্পের সময়ে সবাই সমর্থিত এবং আরামদায়ক অনুভব করে কিনা তা নিশ্চিত করুন; আনুষ্ঠানিক কাঠামোর পাশাপাশি তাদের বাইরে একে অপরের সঙ্গে পরীক্ষা করে দেখুন। যদিও প্রায়ই উপেক্ষা করা হয়, মনোবল বজায় রাখা সফল ডাইরেক্ট অ্যাকশন সংগঠনের একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক। দ্বিধা এবং অনিশ্চয়তার মুখে একসঙ্গে সমানে সমান মাথা রাখুন।

মূল বিষয়

নিরাপত্তা সংস্কৃতি: একটি জানার-প্রয়োজনীয়তার ভিত্তিতে তথ্য আদান-প্রদান করুন

সর্বদা ঝুঁকি কমিয়ে অস্বাস্থ্যকর প্যারানোইয়া এড়াতে নিরাপত্তা সংস্কৃতি একটি পদ্ধতি। যদি আপনি এবং আপনার বন্ধুরা সবসময় বিজ্ঞতার সঙ্গে নিজেদের পরিচালনা করেন, তবে আপনাকে অনুপ্রবেশ এবং নজরদারির ভয় করার খুব কমই থাকবে।

নিরাপত্তা সংস্কৃতির মূল বিষয় হল যে তথ্য আদান-প্রদান করা হয় একটি নিড-টু-নো বেসিসে বা জানার-প্রয়োজনীয়তার ভিত্তিতে। কিছু ক্ষেত্রে, পুরো শহরকে আপনার অ্যাকশন সম্পর্কে জানা প্রয়োজন; অন্য ক্ষেত্রে, এটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যে কখনোই যারা সরাসরি সংযুক্ত তাদের বাইরে অ্যাকশন সম্পর্কে বলাবলি হবে না। কোন ধরণের নিরাপত্তা স্তর যথাযথ মনে হয় সে বিষয়ে অ্যাকশনে নিষ্ঠাবান প্রতিটি কর্মীকে সে বিষয়ে ধারণা দেয়ার এবং নিরাপত্তা সম্পর্কে অন্যের চাহিদাকে সম্মান করার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।

cloudfront.crimethinc.com/assets/articles/2017/03/14/direct-action-guide-2.jpg

নিরাপত্তার ক্ষেত্রে সম্মতি যেমন গুরুত্বপূর্ণ তেমনি যৌনমিলনের ক্ষেত্রেও; নিরাপত্তা বিষয়ে অন্যের ইচ্ছাকে লঙ্ঘন করা কখনোই গ্রহণযোগ্য নয়। আপনার নিজস্ব নিরাপত্তা শুরু থেকে স্পষ্ট করা প্রয়োজন; প্রয়োজন হলে একসঙ্গে নীরবতার শপথ। অতীতের কর্ম সম্পর্কে আপনার বা অন্যদের সংশ্লিষ্ট থাকার বিষয়ে কখনোই কথা বলবেন না, তবে অনেক পরে হলেও, তাদের প্রকাশ অনুমতি ব্যতীত তা করা যাবে না।

যখন একটি গ্রুপ একটি প্রকল্পে কাজ করার জন্য একত্রিত হয়, তখন নিশ্চিত করুন যে প্রত্যেকের উপস্থিতির জন্য এই গ্রুপে অন্যদের নির্ভরযোগ্য এবং বিশ্বাসযোগ্য হিসেবে ধরা হয়। একে অপরকে রক্ষা করার জন্য, আপনাকে জিজ্ঞাসাবাদ ও আইনি চাপের অধীনে নীরব থাকার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।

একটি প্রকল্পের শুরু থেকে, প্রয়োজন অনুসারে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা স্তরের নিরাপত্তা অনুযায়ী আপনার কাজ করা উচিত; আপনি সর্বদা পরে কম সতর্কতা অবলম্বন করতে পারেন, কিন্তু আপনি যদি উদাসীন হতে শুরু করেন তবে আপনি অনেকগুলো বিকল্প অপশন বন্ধ করে দেবেন।

আপনার কর্মগুলোর নজরদারি বা ট্র্যাক করা সমস্ত উপায় সম্পর্কে সচেতন থাকুন: নজরদারি ক্যামেরাগুলোর রেকর্ড, আপনি যে কেনাকাটাগুলো করছেন, আপনি যে জায়গাগুলোতে যান এবং যাদের সাথে আপনি দেখা করেন, মিটিংয়ের অবস্থান, আপনার ট্র্যাশে যে আইটেমগুলো নিক্ষেপ করেছেন, আপনি যে ওয়েবসাইটগুলো ভিজিট করেছেন, আপনার কম্পিউটারের ফাইলগুলো, আপনি যে আঙ্গুলের ছাপগুলো ছেড়ে চলে যান এবং ভার্চুয়ালি এমন কিছু যা প্রায়শই একটি ফোন দিয়ে করতে হয়। কোড তৈরি করুন এবং প্রয়োজন হিসেবে নিরাপত্তা প্রস্তুত করুন।

আইনী সহায়তা : অ্যাকশনের আগে এবং পরে সহায়তা প্রদানে অবকাঠামো প্রস্তুত করুন

অ্যাকশনে সংশ্লিষ্ট প্রত্যেকে তাদের দ্বারা নেওয়া ঝুঁকি এবং তাদের সঙ্গে সম্পর্কিত সম্ভাব্য অপরাধমূলক চার্জ সম্পর্কে সচেতন এবং প্রস্তুত থাকা উচিত। আপনি যাওয়ার জন্য প্রস্তুত অনুভব করার চেয়ে আরও বেশি কিছু গ্রহণ করা গুরুত্বপূর্ণ নয়: যদি আপনি কোনও স্তরের ঝুঁকির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকার কারণে আঘাতপ্রাপ্ত হন বা গ্রেফতার হন, যার জন্য আপনি আবেগগতভাবে প্রস্তুত না হন তবে প্রভাবগুলো হতাশাজনক হতে পারে। ভালোর জন্য আপনি আরও ধীরে ধীরে শুরু করবেন, ডাইরেক্ট অ্যাকশনের সঙ্গে একটি টেকসই সংশ্লিষ্টতা তৈরি করুন যা জীবনব্যাপী চলতে পারে, একটি অ্যাকশনে ছুটে যাওয়ার চেয়ে, একটি খারাপ অভিজ্ঞতা থাকতে পারে এবং এই ধরনের ক্রিয়াকলাপ বন্ধ করে দিতে পারে।

যদি আপনার কর্মের ফলে গ্রেপ্তার হয়, তাহলে অংশগ্রহণকারীদের জন্য একটি আইনি সহায়তা কাঠামো প্রস্তুত করুন। এটা গ্রেপ্তারকৃতদের জন্য একটি লিগ্যাল এইড নম্বর হতে পারে, পুলিশের কাজকাম ডকুমেন্ট এবং মনিটর করার জন্য এবং তাদের উপস্থাপন করার জন্য আইনী পর্যবেক্ষক এবং মামলা চলাকালে আবেগগত, আর্থিক এবং লজিস্টিক্যাল সাপোর্ট দেয়ার জন্য জনতার একটি সার্কেল তৈরি করা এর অন্তর্ভুক্ত হতে পারে।

অ্যাকশনের সময় সর্বদা লিগ্যাল এইড নম্বরটি ইনকামিং কলগুলো গ্রহণের জন্য খোলা থাকা উচিত; মনে রাখবেন যে কিছু ক্ষেত্রে, আপনি জেল থেকে একটি সেল ফোন কল করতে পারবেন না। লিগ্যাল এইড নাম্বারটি গ্রেফতারকৃতরা বা লোকজন যারা কলগুলো গ্রহণ করে তাদের দোষারোপ করা উচিত নয়- যদি আপনার অ্যালাবাই’র অংশ যা আপনি একে অপরকে না জানেন তবে জেল থেকে একই নম্বরটিতে কল করবেন না। যদি আপনি ভয় করেন যে আপনি নম্বরটি ভুলে যাবে, তাহলে একটি পার্মানেন্ট মার্কার দিয়ে আপনার শরীরের গোপন অংশে এটি লিখুন। যারা লিগ্যাল এইড নম্বরটি পরিচালনা করছে তাদের পূর্ণাঙ্গ নামটি জানা প্রয়োজন যারা সম্ভাব্য গ্রেপ্তার হতে পারে এবং তাদের অবস্থা যাচাই করতে পারে।

আপনি যদি গ্রেপ্তারের ঝুঁকি নিয়ে থাকেন তবে আপন প্রসেসিং দ্রুততর করতে বা এটার বাইরে থাকার বিষয়ে আপনার সনাক্তকরণ চান কিনা তা নির্ধারণ করুন, যাতে তারা অবিলম্বে আপনাকে সনাক্ত করতে পারে না। গ্রেফতারকৃতদের একটি বড়দল যারা তাদের তথ্য দিতে অস্বীকার করে তারা একটি আইনি প্রক্রিয়ার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট হতে পারে এবং কখনও কখনও বার্গেইনিং ক্ষমতা অর্জন করতে পারে। আপনার যদি ওষুধ দরকার হয়, তবে আপনি তা ব্যক্তিগতভাবে লুকিয়ে রাখুন অথবা আপনার যা দরকার তা ব্যাখ্যা করে ডাক্তারের কাছ থেকে একটি নোট নিয়ে সঙ্গে রাখুন।

একজন সহানুভূতিশীল এবং বিশ্বস্ত আইনজীবী-অথবা তাদের কয়েকজনকে খুঁজে নিন, কারণ একজন আইনজীবী একই অভিযোগে একাধিক প্রতিবাদীকে প্রতিনিধিত্ব করতে নাও পারে। আইনজীবীদের সঙ্গে যোগাযোগ করুন, বিষয়গুলো নিয়ে আলাপ করুন, কিন্তু কোন কিছু তাদের জানাতে দেবেন না যা তাদের ক্ষতি করতে পারে।

যে কোন কমিউনিটির সদস্যরা গ্রেফতার হতে পারে, অগ্রিম জেল তহবিল প্রতিষ্ঠা করতে পারে; এটা জরুরী মুহূর্তগুলোর মাঝখানে অনেক কাজে দেবে। বেনিফিট শো হাতে নিন, টি-শার্ট বিক্রি করুন, ধনী সহানুভূতিশীলদের কাছ থেকে দান নিন, স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের বন্ধুদের দান করতে আহবান করতে পারেন। নিশ্চিত করুন যে সব সময় সহজে যোগাযোগ করা যায়, হস্তান্তরযোগ্য, বিশ্বাসযোগ্য এমন কাউকে জামিন ফান্ডের দায়িত্ব নেবেন।

এভাবে, আপনার মিডিয়া কৌশল কী হবে তা বিবেচনা করুন- জনমনোযোগ পরিচালনার জন্য কিংবা গ্রেপ্তারকৃতদেরকে সমর্থন করার জন্য হবে কিনা ভাবুন।

মিডিয়া: কি কাভারেজ চান তা প্রতিষ্ঠা করুন এবং নিন

একটা অ্যাকশনের অনেক আগে যখন আপনি লক্ষ্যগুলো প্রতিষ্ঠা এবং অগ্রাধিকার দিচ্ছেন, তখন আপনি কতটা মিডিয়া কাভারেজ চান তা নিয়ে কাজ করুন, কোন সূত্রগুলো থেকে এবং কীভাবে সেগুলো আপনি অর্জন করতে যাচ্ছেন এবং এড়িয়ে চলবেন। এটার অর্থ এই হতে পারে যে একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি (কে, কি, কখন, কোথায়, কীভাবে, কেন) লেখা এবং তা পাঠিয়ে দেয়া কিংবা একটি কমিউনিকে, প্রেসের কাছে আপনার প্রকল্পকে রিপ্রেজেন্ট করার জন্য একজন স্পোকস পারসন বেছে নেয়া, কর্পোরেট কিংবা স্বাধীন সাংবাদিকদেরকে অ্যাকশনে আমন্ত্রণ করা কিংবা প্রেস কনফারেন্সে আমন্ত্রণ জানানো, ঘোষণাপত্র ফ্যাক্স কিংবা প্রেসে কল দেয়া, সাক্ষাৎকার দেয়া (মুখোমুখি কিংবা অজ্ঞাতভাবে কোন বার্নার ফোন দিয়ে), কিংবা আপনার গ্রুপে এমন সদস্য থাকা যারা ডকুমেন্টেশন করবে। আপনি যদি বিশেষ কিছু কাভারেজ এড়িয়ে চলতে চান তাহলে এটার অর্থ এও হতে পারে যে একজন অংশগ্রহণকারীকে নিযুক্ত করা যাতে ফটোগ্রাফার তাদের ক্যামেরা আপনার দিকে না ধরে।

আপনি যদি মিডিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করেন তাহলে টকিং পয়েন্টগুলো লিখুন, সাউন্ড বাইট যাতে আপনার স্পোকস পারসন কাভারেজ হয়েছে কিনা তা পুনরায় খতিয়ে দেখতে পারে। যতটা সম্ভব প্রেসকর্মীদের ম্যাটেরিয়াল কম দিন যাতে সেই কাজটি করতে পারে যা আপনি চান। কোন প্রতিবেদক ইতিবাচক কাভারেজ দেয় তা তালিকাবদ্ধ করে রাখুন এবং ব্যক্তিগতভাবে তাদের সঙ্গে কথা বলুন। আপনার যদি একটা ওয়েব সাইট থাকে, কর্পোরেট মিডিয়া কাভারেজে তার ঠিকানা দিয়ে দিন। আপনি নিজেও তথ্য সরবরাহ করতে পারেন, পোস্টারের মাধ্যমে, পাইরেট রেডিও, কথাবলার অনুষ্ঠান কিংবা ঘরে ঘরে কথা বলতে শুরু করা।

যদি আপনার কর্মটি উচ্চমাত্রার নিরাপত্তা দাবি করে, আপনার বিবৃতি বা বার্তা বা কমিউনিকে নিরাপদভাবে পাঠান: উদাহরণস্বরূপ, এমন একটি পাবলিক কম্পিউটার যেখানে কোন রেকর্ড থাকবে না কে সেটা ব্যবহার করল। আপনি যে ডিভাইসগুলো ব্যবহার করেন সেগুলো কীভাবে আপনাকে পঙ্গু করতে পারে সে সম্পর্কে সচেতন থাকুন।

গ্রাউন্ডওয়ার্ক

পরিকল্পনা: কনটেক্সট পাঠ, একটি কৌশল চার্ট করা, বিভিন্ন পরিস্থিতির জন্য পরিকল্পনা নেয়া

যথাযথ পরিকল্পনা নিরাপদ, কার্যকর ডাইরেক্ট অ্যাকশনের সারবস্তু। আপনার লক্ষ্যগুলো এবং অগ্রাধিকারগুলোকে সম্পদ-সামর্থ্যের সঙ্গে মিল রেখে বিভিন্ন কৌশলের সঙ্গে তুলনা করুন এবং প্লট করুন। প্রতিটা ঝুঁকিতে এবং সম্ভাব্য পুরষ্কারগুলো পাওয়ার জন্য: সর্বদা একটি নির্দিষ্ট উদ্দেশ্য পূরণের সবচেয়ে নিরাপদ উপায়টি বেছে নিন এবং নিশ্চিত করুন আপনার চয়ন করা ঝুঁকিগুলো নিতে আপনি সমর্থ্য। এটা কখনও কখনও ঘটে যখন পরিকল্পনা প্রক্রিয়া চলতে থাকে, একটি প্রকল্প আরো এবং আরো উচ্চাভিলাষী এবং সমস্যাঙ্কুল হয়ে উঠতে পারে, সংশ্লিষ্টদের মধ্যে সংশয় শুরু না হওয়া পর্যন্ত; সে সময় পরিকল্পনাটি নিরাপদ এবং সংক্ষেপিত করা যাতে তখনো তা বাস্তবায়ন করা যায়।

cloudfront.crimethinc.com/assets/articles/2017/03/14/direct-action-guide-3.jpg

পরিকল্পনায় সেখানে অসংখ্য ফ্যাক্টর বিবেচনায় রাখার বিষয় আছে। বর্তমান সমাজ এবং রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে আপনি অবশ্যই কার্যকর কৌশলটি বেছে নেবেন। অ্যাকশনের জন্য সবচেয়ে সেরা জায়গাটা বেছে নিতে হবে এবং তার বৈশিষ্ট্যগুলো অবশ্যই বিবেচনায় নিতে হবে; আপনি অবশ্যই যথার্থ দিনের সঠিক সময়টি বেছে নেবেন। ওই অঞ্চলের বাসিন্দাদের মাথায় রাখতে হবে এবং তারা কীভাবে প্রতিক্রিয়া দেখায়- তারা কি সহানুভূতিশীল হবে, নাকি শত্রুপক্ষের কেউ হবে যা আপনার কর্মকাণ্ডে হস্তক্ষেপ করবে? অ্যাকশনের বিভিন্ন অংশের সমন্বয় আপনাকে অবশ্যই করতে হবে, পূর্বানুমান থাকা যে প্রত্যেকটা কতক্ষণ করে থাকতে পারে এবং বিবেচনা করুন যারা অ্যাকশনে সংশ্লিষ্ট থাকবে তারা কীভাবে যোগাযোগ করবে।

যখন অন্যের প্রতিক্রিয়া পূর্বানুমান করবেন- ধরুন, উদাহরণস্বরূপ, পুলিশ-কোন ফ্যাক্টরগুলো তাদের উপর প্রভাব ফেলে তা বিবেচনা করুন: তা কি প্রত্যাশা করছে আপনি কি পরিকল্পনা করছেন, কিংবা আপনার কাছে বিস্ময়ের (সারপ্রাইজ) কোন উপাদান আছে কিনা? যদি আপনার হাতে সারপ্রাইজের সুযোগ থাকে, তা কতক্ষণ থাকবে? সেখানে কি অনেক মনোযোগ কাড়বে? এটা কি তৎক্ষণাৎ দৃশ্যত হবে আপনি কি করছেন? সেখানে কি মধ্যবিত্ত নাগরিক থাকবে কিংবা সাংবাদিক আশেপাশে থাকবে, এবং তাদের উপস্থিতি কি কর্তৃপক্ষের প্রতিক্রিয়ার জন্য একটি ড্যাম্পার কিনা? তাদের বসেরা কি তাদেরকে আপনার প্রতি কঠিনভাবে নিচ্ছে- কিংবা একটি দৃশ্য এড়ানোর জন্য প্ররোচনা দিতে চাচ্ছে? তারা কতটা ভালোভাবে যোগাযোগ করতে পারে, তারা কতটা দ্রুতগতিতে মুভ করতে পারে, তারা কোথায় অবস্থিত, কোন ধরণের রাস্তা তারা নেবে?

সাধারণ লজিস্টিক বিষয়গুলোর চ্যালেঞ্জকে তাচ্ছিল্য ভাববেন না, যেমন লোকেদের পরিবহনের বা চাপপূর্ণ পরিস্থিতিতে তাদেরর সঙ্গে যোগাযোগ করা। একটি প্রস্থান কৌশল পরিকল্পনা করতেও ভুলবেন না।

কারণ পরিকল্পনা খুব কমই যথাযথভাবে বাস্তবায়ন হয় যেভাবে সেগুলো তৈরি করা হয়, বিভিন্ন পরিস্থিতিতে জন্য ব্যাকআপ পরিকল্পনাগুলোর উপর কাজ করা গুরুত্বপূর্ণ: “যদি…, আমরা… করব; যদি…হয়, আমরা… করব।” কয়েকটি ভিন্ন ভিন্ন লক্ষ্য মাথায় রাখুন, পরে যদি প্রথম পছন্দটি অসম্ভব হয়ে উঠে। যোগাযোগ এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য একটি মৌলিক কাঠামো কার্যকর থাকলে তা আপনাকে বিভিন্ন পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত থাকতে সহায়তা করবে।

আপনার অ্যাকশনের কারণে কেউ ঝুঁকিতে পড়বে কিনা সে সম্পর্কে সচেতন থাকুন; কর্তৃপক্ষ সম্ভবত তাদের পক্ষের সবচেয়ে খারাপ অপরাধগুলোর একটা করতে পারে যাকে তারা হাতে পাক না কেন।

সুতরাং এটা উভয়ই গুরুত্বপূর্ণ যে যারা ঝুঁকিপূর্ণ নেবে তাদেরকে ওই এলাকার বাইরে নিরাপদে নেয়া এবং এটা নিশ্চিত করা যে গুরুতর চার্জ যেন অন্য কারো প্রতি লেগে না থাকে। কাছে আটকাতে পারে না তা নিশ্চিত করা উভয়ই গুরুত্বপূর্ণ। কিছু ক্ষেত্রে, আপনি একাধিক স্তরের গ্রুপকে এসঙ্গে রাখতে পারেন যাতে প্রত্যেকেই সাধারণ লক্ষ্য সম্পর্কে সচেতন কিন্তু শুধু বিশেষ কিছু ক্রিটিক্যাল ডিটেইল জানবে যেমন লক্ষ্য কোনটা কিংবা কে ঝুঁকিপূর্ণ কাজটি করতে যাচ্ছেন।

সবচেয়ে ভালো দৃশ্য এবং সবচেয়ে খারাপ দৃশ্যের জন্য প্রস্তুত থাকুন। নতুন আইডিয়া, যদি সেগুলো ভালো হয় তা ব্যর্থ হওয়ার প্রবণতা থাকবে কেননা জনতা সেগুলোকে খুব বেশি দূরে নেবে না যেখানে পুরাতন আইডিয়াগুলো ব্যর্থ হয় কারণ সেগুলো সবার কাছেই খুব বেশি পরিচিত, কর্তৃপক্ষসহ। পুরোপুরি নতুন পরিবেশে মাঝেমাঝে পরিচিত কৌশলে খুব ভালো ফল আসে।

পূর্বের ঘটনাগুলোর দিকে ফিরে তাকালে দেখা যাবে যে একই কনটেক্সটে একই অ্যাকশন নেয়ার চেষ্টা করা হয়েছিল। এই খুব উপযােগি হতে পারে। আপনি যেমন বছরে পর বছর অভিজ্ঞতার সংগ্রহ করেন এবং অন্যদের সফলতা এবং ব্যর্থতা থেকে শিখেন, আপনি বিভিন্ন ধরণের পূর্বাভাসের দক্ষতা এবং একটি বিস্তৃত পরিসরের জন্য প্রস্তুত হয়ে উঠবেন।

প্রস্তুতি : যন্ত্রপাতি সংগ্রহ করুন এবং পোশাক যথাযথভাবে পড়ে নিন

একবার আপনার পরিকল্পনাগুলো পেশ করা হয়ে গেলে, আপনার অ্যাকশন না হওয়া পর্যন্ত টাইমলাইন আঁকুন, পিছনে গণনা করুন যাতে সমস্ত খুঁটিনাটি জিনিসপত্র নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যেই নিশ্চিত থাকে।

পরিকল্পনার শুরুতে অর্থায়ন, জিনিসপত্র এবং অন্যান্য রিসোর্সের উপর কাজ করুন যা আপনার লাগবে এবং কীভাবে তা পাবেন। যদি নিরাপত্তা একটি অগ্রাধিকার হয়, সঙ্গে নিন যা আপনার দরকার এবং এটা আপনাকে ট্রেস করবে না, শহর থেকে আসা অ্যাফিনিটি গ্রুপ অ্যাকশন-স্থল থেকে দূরে জিনিসপত্রের মধ্যে সংযোগ ঘটাতে পারে।

নিশ্চিত করুন প্রত্যেকেই অ্যাকশনের জন্য যথাযথ ড্রেস পরিধান করেছে, যদি প্রয়োজন হয় বিভিন্ন স্তরের জন্য বিভিন্ন আউটফিট তাহলে সেগুলোসহ। নিরাপত্তা বিষয়টি মাথায় নিন যেহেতু তারা পোশাক-পরিচ্ছদের সঙ্গে সম্পর্কিত করে: যদি প্রত্যেকে অজ্ঞাত থাকার জন্য কালো পোশাক পড়ে, তাহলে নিশ্চিত করুন যে কেউ যেন একক চিহ্নিত পোশাক না পড়ে; এভাবে, আপনি যদি র্যানডম পথচারীর মতো ভঙ্গি নিতে যান তাহলে জায়গার ভিন্নতা অনুযায়ী পোশাক পরিধান করুন। যদি টাইমিং গুরুত্বপূর্ণ হয় তাহলে নিশ্চিত করুন যে আপনাদের প্রত্যেকের ঘড়ির সময়ের সঙ্গে সিঙ্ক্রোনাইজ করা আছে কিনা।

ডাবল-চেক করুন সবকিছু ডেড-লাইনের আগে প্রস্তুত আছে কিনা। একটা প্র্যাকটিসের মধ্যে দিয়ে যান, শারীরিকভাবে সম্ভব না হলে মৌখিকভাবে। যদি অংশগ্রহণকারীরা এলাকার সঙ্গে অপরিচিত থাকে, মানচিত্র বণ্টন করে দিন। যদি প্রয়োজন হয় তাহলে এলাকায় দরকারি জিনিসপত্র অ্যাকশনের আগেই প্লান্ট করে রাখুন-সর্তক থাকুন যাতে প্রসেসের মধ্য সবকিছু ছেড়ে দিতে না হয়।

স্কাউট : অ্যাকশনের স্থান পাঠ করুন এবং পরিবর্তনে হালনাগাদ থাকুন

কর্মের আগে, সর্তকভাবে এলাকা পাঠ করুন। আসা-যাওয়ার নিরাপদ রাস্তা নির্ধারণ করুন; লুকানোর জায়গা দেখুন, বাধাগুলো দেখুন, সম্ভাব্য লক্ষ্য এবং নজরদারি ক্যামেরা (এটিএম এবং স্টপলাইটগুলোসহ) সন্ধান করুন। প্রধান প্রধান দূরত্বে যেতে কতক্ষণ লাগতে পারে সে সম্পর্কে নোট নিন এবং প্রধান জায়গা থেকে এবং দৃশ্যমানতা সম্পর্কে অবগত থাকুন। কর্তৃপক্ষ কতটা নিকটে, সেখান থেকে আসতে তাদের কতক্ষণ লাগতে পারে? তাদের অ্যাপ্রোচে কি দেরি হতে পারে? আর কে আছে সে এলাকায়?

স্কাউটিং করার সময়, সতর্ক থাকুন যাতে আপনার প্রতি মনোযোগ আকর্ষিত না হয় এবং আসা-যাওয়ায় কোন সুস্পষ্ট রেকর্ড ছেড়ে না যান। আপনার স্কাউটিংয়ের কিছু অংশ দিনের একই সময়ে রাখুন যেমনটা অ্যাকশন পরিকল্পিত এবং যদি সম্ভব হয় তাহলে একটি দ্রুত চেক করুন ঠিক আছে কিনা। যদি আপনার অ্যাকশন জটিল কাজ হয়, যেমন ধরুন একটি খাড়া ছাঁদের চাল বেয়ে যাওয়ার দরকার হয়, এটা সম্ভবত ভালো হয় যদি আপনি আগে তা প্র্যাকটিস করে নেন।

ছবি, মানচিত্র এবং পুস্তিকা, এরিয়াল ম্যাপস কিংবা ব্লুপ্রিন্ট সম্ভবত সহজলভ্য। বিশেষ কিছু ক্ষেত্রে আপনি টুরিস্ট কেন্দ্র থেকে তথ্য সংগ্রহ করতে পারেন কিংবা কল দিতে পারেন এবং প্রশ্ন করতে পারেন একটা নির্দিষ্ট ভঙ্গিতে (যেমন ধরুন আপনি একজন শিক্ষার্থী একটা প্রতিবেদন করছেন প্রভৃতি) কিংবা একটা গাইডেড টুর গ্রহণ করতে পারেন। যখন আপনি অনেক তথ্য সংগ্রহ করবেন তখন এটা গুরুত্বপূর্ণ অংশগুলোকে মানচিত্রে সমন্বিত করা যেতে পারে প্রয়োজন অনুসারে। সব ফাইল বা কাগজপত্র নিরাপদে আদান-প্রদানে সর্তকতা অবলম্বন করুন।

ভূমিক : দায়িত্ব ভাগ করে নিন এবং সিদ্ধান্ত-গ্রহণ কাঠামোগুলো সেট করুন

আপনার পরিকল্পনাটি বাস্তবায়ন করতে প্রয়োজনীয় সমস্ত ভূমিকা সনাক্ত করুন এবং নিশ্চিত করুন যে এইগুলোর প্রত্যেকটি পূরণ করা আছে। কিছু সম্ভাব্য ভূমিকা অন্তর্ভুক্ত:

  • পর্যবেক্ষণ
  • স্কাউট
  • পুলিশ লিয়াজোঁ
  • মিডিয়া স্পোকসপারসনস
  • অাভ্যন্তরীণ মিডিয়া
  • আইনী সহায়তার যোগাযোগ
  • আইনী পর্যবেক্ষক
  • চিকিৎসক/ চিকিৎসা
  • বিক্ষেপ বা ডিস্ট্রাক্টশনস
  • ”প্লান্টস” (বিভিন্ন ধরণের ছদ্মবেশ যদি প্রয়োজন হয়)
  • গেটওয়ে ড্রাইভার
  • মানুষ যে জিনিসপত্র স্থানান্তর করবে
  • মানুষ যে তথ্য গ্রহণ করবে এবং কৌশলগত সিদ্ধান্ত নেবে
  • মানুষ যে প্রকৃত অ্যাকশনটি পরিচালনা করবে

কিছু পরিস্থিতিতে, গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাগুলোর জন্য আন্ডারস্টাডি বা সচেতন থাকা প্রয়োজন যাতে শেষ মুহূর্তে এসে কারও অনুপস্থিতিতে সে জায়গায় অন্য কাউকে কাজে লাগানো যেতে পারে। এটা বিশেষভাবে সত্য যে যদি আপনি আগে থেকেই না জানেন যে আপনার অ্যাকশনের তারিখ কি হবে- উদাহরণস্বরূপ, যদি এমন কোন ইভেন্টের সাথে মিলিত হয় যা আপনি অগ্রিম পূর্বাভাস নাও করতে পারেন, যেমন একটি রায় ঘোষণা বা যুদ্ধ ঘোষণা।

cloudfront.crimethinc.com/assets/articles/2017/03/14/direct-action-guide-4.jpg

কূটনীতি : আপনার অ্যাকশন যেভাবে অন্যকে প্রভাবিত করবে তা বিবেচনা করুন

আপনার কর্ম সঞ্চালনের সময় বা বড় ইভেন্টের অংশ হিসেবে, সেখানে সম্ভবত বড় সমাবেশ হতে পারে যেখানে বিভিন্ন গ্রুপ তাদের প্রচেষ্টা সমন্বয় করার চেষ্টা করে। এইগুলো ব্যবহার উপযোগি হতে পারে, কিন্তু সেগুলো অনেকটা সময় এবং শক্তি খরচ করে থাকে, তাই নিশ্চিত করুন যে আপনি কি সম্পাদন করার আশা করছেন তা ঠিকঠাক জেনে তাদের মধ্যে যান।

আপনি হাজার হাজার জনতার মাঝে বা অন্য কোন অ্যাক্টিভিস্টের সঙ্গে কিংবা যে কারো থেকে দূরে কার্য সম্পাদন করুন না কেন, বিবেচনায় রাখুন যে আপনার অ্যাকশনগুলো অন্য লোকদেরকেও প্রভাবিত করবে। তারা কি অন্যদের বিপন্ন করবে? তারা কি পুলিশী নিপীড়নকে উস্কে দেবে? যদি তাই হয়, অন্যরা কি এটা সহ্য করবে, এবং এটা কি অফসেট করা সম্ভব? আপনার অ্যাকশনগুলো কি অন্য কমিউনিটির জন্য গুরুত্বপূর্ণ কাজ করতে আরো কঠিন করে তুলবে? সেখানে কি নেগোশিয়েশন কিংবা পুনআশ্বাস আছে যাতে আপনি অ্যাকশনের আগে, অ্যাকশনের সময়, বা পরে সংশ্লিষ্ট হওয়ার প্রয়োজন আছে কি?

অন্য গ্রুপের সঙ্গে যেসব চুক্তি করেছেন তাকে শ্রদ্ধা করা; কেউ কেউ আপনাকে সাহায্য করতে ইচ্ছা পোষণ করতে পারে, আপনি কি করতে যাচ্ছেন সেসবের সুনির্দিষ্টি ডিটেইল জেনে বা না জেনে। সময়ের ব্যবধানে, আপনি যদি বিশ্বাসযোগ্য এবং বিবেচক বলে প্রমাণ করেন তাহলে আপনি তাদের সঙ্গে ঐক্য গঠন করবেন।

cloudfront.crimethinc.com/assets/articles/2017/03/14/direct-action-guide-5.gif

অ্যাকশনের সময় এবং অ্যাকশনের পরে

সচেতনতা: অ্যাকশনের সময়জুড়ে সতর্ক থাকুন

যে কোন অ্যাকশনের সফলতার জন্য সচেতনতা হল প্রধান বিষয়। প্রায়ই, পরিবেশ খুব দ্রুতই পরিবর্তিত হতে পারে। আপনার চারপাশে কি ঘটছে সে সম্পর্কে হালনাগাদ থাকা গুরুত্বপূর্ণ এবং একটি বিশেষ পরিস্থিতিতে আপনি কীভাবে প্রতিক্রিয়া দেখাবেন সে সম্পর্কে আগে থেকেই প্রতিষ্ঠা করা। উদাহরণস্বরূপ, একটি পুলিশ কার পৌঁছানো কি খুব বেশি বড় বিষয়? দশজন? শহরে আন্দোলনকারীদের অনুসরণ করা পুলিশের জন্য কি সাধারণ বিষয়? যখন আপনি কখনোই নিশ্চিত হতে পারবেন না কি ঘটবে, আগেভাগেই সম্ভাব্য দৃশ্যাবলির মধ্যদিয়ে যাওয়া এবং আপনার গ্রুপ কীভাবে সেটা মোকাবিলা করবে সে সম্পর্কে আইডিয়া থাকা মানে প্রত্যেককে অধিক সলিড আইডিয়া দেয়া যে কীভাবে প্রতিক্রিয়া দেখাতে হবে- কিভাবে অতি-প্রতিক্রিয়া দেখানো যায় না-পরিস্থিতি দেখা দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে।

যখন কোন পরিস্থিতি সম্পর্কে অন্যকে জানানো হবে তখন কাঁচা তথ্য ঘোষণা করুন, সিদ্ধান্তগুলো নয় যেখান থেকে আপনি নিতে পারেন (পুলিশরা গ্যাস-মাক্স পড়ছে। কিন্তু এটা না যে তারা আমাদের গ্যাস মারতে যাচ্ছে), যাতে অন্যরা নিজেদের সিদ্ধান্ত নিতে পারে। আতঙ্কর উদ্বেগে বাধা দিন এবং চালিয়ে নেয়ার প্রবণতাও রাখুন।

যোগাযোগ: অন্যদেরকে জ্ঞাত রাখুন

অ্যাকশনের সময় স্কাউটরা পরিবর্তন নির্ঘণ্ট চালিয়ে নিতে পারেন যেমন পুলিশের পৌঁছানো, জনতার আন্দোলন, কাছাকাছি অন্যদের কার্যক্রম এবং নিরাপদ জোন। তারা বার্নার ফোনের মতো যােগাযোগ ব্যবস্থা নিতে পারে, এনক্রিপ্টেড টেক্সট মেসেজিং, টু-ওয়ে রেডিও কিংবা হুইসেল একত্রে থাকার জন্য; অডিও, ভিজুয়াল সাইন যেমন কার হর্ন কিংবা ফায়ারওয়ার্কও কাজে আসতে পারে। পুলিশের যােগাযোগ মনিটর করার জন্য একটি পুলিশ স্ক্যানার ব্যবহার করা যেতে পারে।

যোগাযোগকে আরও কার্যকর করতে, স্কাউট অ্যাকশনের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত কোন ব্যক্তি বা উপ-দলের কাছে রিপোর্ট করতে পারে; একটি বড় সেটিংসে, তারা তাদের একটি কেন্দ্রীয় তথ্য কেন্দ্রে ফোন করতে পারে, যাতে অন্যেরা প্রশ্ন নিয়ে কল করতে পারে।

যোগাযোগের সরঞ্জামগুলো আপনাকে আরও কার্যকর এবং কার্যকর করে তুলতে পারে, এটা নজরদারির ঝুঁকিও বাড়ায়। আপনি কোড এবং কোডের নাম ব্যবহার করতে পারেন, তবে বুদ্ধিদীপ্ত-জটিল কোডগুলো ভুলে যাওয়া সহজ এবং প্রসিকিউটররা এই সিদ্ধান্তে আসতে পারে যে আপনার কোডগুলো আসলে তাদের চেয়ে আরও কঠোর কিছু বোঝায়। এমনকি যদি অন্য কোনও যোগাযোগ ব্যবস্থা ব্যবহার করা না হয় তবে তা জরুরি অবস্থাগুলোর জন্য “বাতিল” সংকেত ব্যবহার করা উপকারী হতে পারে।

ছত্রভঙ্গ : আপনি এগিয়ে থাকলে প্রস্থান করুন

ডাইরেক্ট অ্যাকশন সংগঠনে সবচেয়ে এড়িয়ে যাওয়া বিষয়টা হল একটি নিরাপদ স্কেপ বা প্রস্থান। আগেভাগেই একটি প্রস্থান কৌশল সম্পর্কে নিশ্চিত হোন। আপনি যদি একটি বড় গ্রুপে থাকেন, বিশেষ করে তাদের সঙ্গে যারা পরিকল্পনা প্রক্রিয়ার অংশ ছিলেন না, ভাবুন কিভাবে পালের মন-মানসিকতা এড়িয়ে যাবেন যা ক্রাউডকে এটার পেছনে একত্রে রাখে, ভাগাভাগি হয়ে যাওয়া শ্রেয়। জানুন কখন আপনার সুবিধার দাবি তুলবেন এবং কখন ত্যাগ করবেন, কখন যতদ্রুত সম্ভব দৌঁড়াতে হবে এবং কখন নির্বিকারভাবে হাঁটতে হবে। যাকিছু আপনাকে দোষারোপ করতে পারে তা ফেলে দিন, সম্ভব হলে সেটা আর সে জায়গা পাওয়া যাবে না; যতক্ষণ না পর্যন্ত আপনি নিশ্চিত হবেন যে আপনি আর পর্যবেক্ষণে নেই ততক্ষণ পর্যন্ত অপেক্ষা করুন আপনার উপস্থিতির পরিবর্তন করতে।

যদি প্রয়োজন হয় পরে একটি নিরাপদ জায়গা সমবেত হোন এবং নিশ্চিত করুন প্রত্যেকের দায়-দায়িত্ব বিষয়ে: জামিনের টাকা সংগ্রহ, বাইরের সহযোগিতা খোঁজা, সংবাদ বিজ্ঞপ্তি লেখা। যখন প্রত্যকে এখনো আছে আশেপাশে, যে কারো যোগাযোগের তথ্য নিন যিনি গেপ্তারকৃতদের সহযোগিতার জন্য সম্ভাব্য সাক্ষ্য কিংবা ডকুমেন্টশন সরবরাহ করবে।

প্রশ্নোত্তর পর্ব : কি ভালো গেল আর কি শেখা দরকার সে বিষয়ে আলোচনা করতে পুনরায় মিলিত হোন

অ্যাকশনের পরে, আপনার বিরুদ্ধে ব্যবহার করা যেতে পারে এমন যে কোন প্রমাণ ধ্বংস করুন; অ্যাকশনে ব্যবহার করার সরঞ্জাম আপনার বাড়ির বাইরের লুকানো স্থানে রাখুন। যদি আপনাকে ভবিষ্যতে কোন তারিখে আদালতে সাক্ষ্য দিতে হতে পারেন তবে কাগজের একটি ছোট্ট টুকরায় মনে রাখার জন্য প্রয়োজনীয় সমস্ত বিবরণ লিখে রাখতে বিবেচনা করুন এবং এমন জায়গায় লুকিয়ে রাখুন যেখানে আপনি নিশ্চিত হতে পারেন যে এটা কখনই পাওয়া যাবে না। একটি নিরাপদ সেটিং একসঙ্গে মিলিত হন এবং কি ঘটেছে সে বিষয়ে আলোচনা করুন।

চলমান বিষয়গুলোর উপর নজর রাখুন, যেমন আদালতের মামলাগুলো গ্রেপ্তারকৃতদের সমর্থন করা, জনস্মুখে আরও তথ্য সামনে নিয়ে আসা, অ্যাকশনের লক্ষ্য এবং আইডিয়া যেমনটা এবং দ্বন্দ্বগুলো বাছাই করা। আপনার বিজয়কে উদযাপন করুন, একে অপরের প্রতি গঠনমূলক সমালোচনা সরবরাহ করুন, আপনার ভুলগুলো থেকে শিখুন এবং পরবর্তী প্রকল্পের জন্য পরিকল্পনা তৈরি করুন।

ডাইরেক্ট অ্যাকশন সম্পর্কে একডজন মিথ